কিভাবে সোশ্যাল মিডিয়া অপ্টিমাইজ করে আপনার নতুন ব্লগে ট্রাফিক নিয়ে আসবেন ?

খুব কষ্ট হয় না যখন আপনি একটা নতুন ব্লগ খুলেছেন অথচ আপনার ওয়েবসাইটে কোন ট্রাফিক আসছে না এবং আপনি যেহেতু নতুন ওয়েবসাইট খুলেছেন সে কারণে গুগোল থেকেও অর্গানিক ট্রাফিক পাওয়া খুবই কষ্টকর এবং এটা পেতে অনেকটা সময় লাগবে কিন্তু কোনো চিন্তা নেই আজকে আমি আপনাদের জন্য কিছু সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং টেকনিক্স নিয়ে এসেছে যেগুলো আপনার নতুন সাইটে ট্রাফিক ডেফিনেটলি ইনক্রিজ করবে এই পোস্টে আমি সমস্ত টেকনিকগুলো ডিটেইলস এ আলোচনা করব সুতরাং কোনো দেরি না করে শুরু করা যাক এবং শেষ পর্যন্ত ব্লগ থেকে অবশ্যই পড়বেন তাহলে আপনি উপকৃত হবেন।

প্রথমে আসি সোশ্যাল মিডিয়া অপটিমাইজেশন কি জিনিস( what is social media optimization)

সোশ্যাল মিডিয়া অপটিমাইজেশন মানে হল আপনার সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্টগুলোকে ভালোভাবে অপটিমাইজ ভালোভাবে অপটিমাইজ করা যাতে আপনার বিজনেস খুব ভালোভাবে কম সময়ে গ্রহ এবং আপনি যদি ব্লগিং তাকে একটা বিজনেস হিসেবে দেখেন তাহলে অবশ্যই বলব যে নতুন ওয়েবসাইটে ট্রাফিক নিয়ে আসার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ভালো জিনিস আর কিছু নয় তাই সোশ্যাল মিডিয়াকে খুব ভালোভাবে অপটিমাইজ করতে পারলে তুমি প্রচুর পরিমাণে ট্রাফিক পাবে এবং তারও অনেক সুবিধা আছে এবং এই ট্রাফিক থেকে তুমি পরবর্তীকালে গুগলের অর্গানিক ট্রাফিকও পেতে সুবিধা হবে

সবার প্রথমে তোমার ব্লগ পোস্টে খুব কোয়ালিটি কন্টেন্ট পাবলিশ করতে হবে( Publish quality conntent)

কনটেন্ট হলো কিং এই কথাটা তুমি অবশ্যই শুনেছো এবং এটা সবথেকে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ যে বিষয় যে আপনার ওয়েবসাইটে ট্রাফিক আসবে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে তখনি যখন আপনার কনটেন্ট গুলো খুবই হাই কোয়ালিটি এবং ভ্যালুয়েবল হবে তুমি যদি কোয়ালিটি কনটেস্ট না করো তাহলে কেউ তোমার ওয়েবসাইটে আসবেনা

ভালো কনটেন পাবলিশ করার জন্য তোমার সোশ্যাল মিডিয়ায় ইন্টারেকশন বেড়ে যাবে এবং একবার একটা ইউজার এসে যদি তোমার ওয়েবসাইটে কন্টেন ভালো লাগে তাহলে সে অবশ্যই দ্বিতীয়বার নতুন কোন ব্লগ পোস্টে আসবে

সবসময় মনে করবে যে কনটেন্ট এর সঙ্গে কোনো রকম আপস করবে না কারণ কোনটি হল মেয়ের ফ্যাক্টর সোশ্যাল মিডিয়ায় অপটিমাইজেশন থেকে ট্রাফিক নিয়ে আসা

নিজের ওয়েবসাইটে আপনার সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেল গুলো লিঙ্ক করিয়ে নিন( Link your social media profile with your website)

 

নতুন ব্লগাররা যে ভুলটা প্রায়ই করে যে তারা ফেসবুক ইনস্টাগ্রাম ইন্টারেস্ট টুইটার ইউটিউব প্রভৃতি জায়গার লিংক তাদের নতুন ওয়েবসাইটে করে না না কিন্তু এটা কখনোই করা উচিত নয় সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ট্রাফিক পেতে গেলে যতগুলো সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম আছে ফেসবুক থেকে শুরু করে ইউটিউব সব জায়গায় আপনার উপস্থিত থাকতে হবে এবং সব জায়গায় আপনার যে হ্যান্ডেল আছে সেটার লিঙ্ক আপনি আপনার ব্লগ পোস্টে শেয়ার করবেন যাতে কোন ভিজিটর খুব সহজেই আপনার ওয়েবসাইটকে খুঁজে পায়

প্লাগিন এর মাধ্যমে সোশ্যাল শেয়ার বাটন এড করুন (add social share plugin)

ধরুন কোন ইউজার আপনার ওয়েবসাইটে এল এবং আপনার ওয়েবসাইটের কোন ইনফরমেশন তার ভালো লাগলো কিন্তু আপনার কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটে যদি শেয়ারিং বণ্টন না থাকে তাহলে সে তার আর্টিকেলটা পছন্দ হলেও তার সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলে বা বন্ধু বান্ধব কে শেয়ার করতে পারবে না তাই অবশ্যই একটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার প্লাগিন ইউজ করুন এতে আপনার প্রতিটা ব্লগ পোস্টের শেষে সেই বাটন থাকবে এবং কারোর কোন পোস্ট পছন্দ হলে সে খুব সহজেই সেই পোস্টটা সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করতে পারে এতে আপনার ওয়েবসাইটে ট্রাফিক কিছুটা হলেও বাড়বে।

এবার আসি তোমার সোশ্যাল মিডিয়া মিডিয়া অ্যাকাউন্টগুলো অপটিমাইজ করুন( How to optimise your social media profile?)

নতুন ব্লগার আছে যারা তাদের ফেসবুক টুইটার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট এ নিজের ওয়েবসাইট এর লিঙ্ক শেয়ার করে না এমনকি তারা এটাও শেয়ার করে না যে তারা কি কাজ করে সেটা খুবই ভুল আপনি
আপনার সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইল গুলোকে খুব ভালোভাবে অপটিমাইজ করুন খুব ভালোভাবে অপটিমাইজ করার অর্থ হলো যখনই কোনো কোনো মানুষ আপনার প্রোফাইলে আসবে তখনই সে যেন বুঝতে পারে যে আপনি ঠিক কি কাজ করেন আপনি কোন ওয়েবসাইটের মালিক আপনি কি কি কি বিষয়ে লেখালেখি করেন বা আপনি কিভাবে ইনকাম করে এর জন্য ফেসবুকের ক্ষেত্রে আপনি আপনার কভার ফটোতে একটা ভালো ডিজাইনের পোস্ট করে রাখতে পারেন বা আপনি আপনার টুইটার অ্যাকাউন্টে আপনার ওয়েবসাইটের লিংক দিতে পারেন আপনার ইনস্টাগ্রামের বায়োটেক সংক্ষেপে আপনি কী করেন সেটা লিখতে পারেন এবং আপনার ওয়েবসাইটের লিংক দিতে পারেন এগুলো করলে কি হয় যে আপনার ওয়েবসাইটে অটোমেটিক্যালি কিছু ট্রাফিক বৃদ্ধি পায়

সোশ্যাল মিডিয়ায় আপনার ফলোয়ার বাড়াতে থাকো( keep increasing your follower in social media)

যেদিন থেকে আপনি ব্লগিং শুরু করেছেন সেদিন থেকেই আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় ফলোয়ার বাড়াতে থাকুন ডেলি ব্লগিং রিলেটেড বাপ নিজে কাজ করেন সেই রিলেটেড ছবি পোস্ট করুন বা সবসময় চেষ্টা করুন আপনার ফ্রেন্ডলিস্টে যারা আছে তারা যেন আপনার ডেডিকেটেড পাঠক হয় এবং আপনি বিভিন্ন গ্রুপে জয়েন হতে পারে সেখানে ডেলি পোস্ট করতে থাকুন আপনার বন্ধু বান্ধব কে ট্যাগ করতে থাকুন তাহলে নতুন নতুন লোক আপনার সন্ধান পাবে এবং আপনি আপনার সোশ্যাল মিডিয়া ফলে খুব সহজেই বাড়াতে পারবে

একটি প্লাটফর্ম এ ফোকাস করুন (Focus on one platform in social media)

এখানে একটা ভালো টিপস হলো এটাই যে যেকোনো একটা সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলে বেশি একটিভ থাকুন সেটা হতে পারে ফেসবুকে সেটা হতে পারে ইউটিউব সেটা হতে পারে টুইটার আপনি যখন একসঙ্গে সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলে একটিভ থাকার চেষ্টা করবেন তখন আপনার গ্রোথ অনেক কম হবে তার জায়গায় আপনি যদি একটা প্লাটফর্মের উপর নির্ভর করে সেটাকে নিয়েই প্রতিদিন এগিয়ে যান তাহলে আপনি অনেক তাড়াতাড়ি রেজাল্ট পাবেন

সোশ্যাল মিডিয়ায় আপনার কমিউনিটি তৈরি করা( Build community in social media)

আছে যারা সোশ্যাল মিডিয়ায় কমিউনিটি তৈরি করে না কিন্তু এটা খুবই ভুল আমি প্রথম দিন থেকে ব্লগিং শুরু করলে আপনার কমিউনিটির তৈরি করতে পারবেন যেমন আপনি যদি হেলথ রেলেটদ টপিক নিয়ে লেখালেখি শুরু করেন আপনি ফেসবুকে একটা হেলথি সিলেটের গ্রুপ বানাতে পারেন ইউটিউব একটা হেল্প চ্যানেল চ্যানেল একটা গ্রুপ বানাতে পারেন ইউটিউব একটা হেল্প চ্যানেল চ্যানেল একটা হেল্প চ্যানেল বানাতে পারেন আপনি দুটোতেই কাজ করলে আপনার একটা কমিউনিটি তৈরি হয় আপনি যদি ক্রিকেট নিয়ে লেখালেখি শুরু করেন তাহলে আপনি একটা ফেসবুকে ক্রিকেটের গ্রুপ বানাতে পারে এমনকি আপনি টেলিগ্রাম গ্রুপ বানাতে পারেন যেখানে আপনি প্রতিদিন ক্রিকেট নিয়ে আলোচনা এই সমস্ত কাজ করছেন তাহলে আপনার সোশ্যাল মিডিয়া থেকে প্রতিদিন ট্রাফিক থাকুন।

নিয়মিত পোস্ট করুন ( Do regular post)

নিয়মিত পোস্ট করতে থাকে অনেকেই আছে যারা সোশল মেডিয়া নিয়মিত পোস্ট করে না সে নিয়মিত পোস্ট করলে তবে আপনার একটা কোয়ালিটি ইউজার বেস তৈরি হবে তার আগে নয় তো আপনাকে প্রতিদিন অন্তত একটা করে পোষ্ট করতেই হবে সেটা মাথায় রেখে আপনি ব্লক টা কে কাজে লাগান এবং চেষ্টা করুন সপ্তাহে একদিন আপনার সমস্ত পোস্টগুলো আগে থেকে স্কেজিউল করতে তাহলে আপনার অনেকটা সময় বেচে যাবে

ইউজ কীওয়ার্ডস( Use keywords)

এ আছে যারা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার সময় কোন কীবোর্ড ইউজ করেনা বা হেয়ার স্টাইলস করেনা আপনি সবসময় আপনি সবসময় বা হেয়ার স্টাইলস করেনা আপনি সবসময় আপনি সবসময় আপনি সবসময় সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার সময় হ্যাশট্যাগ ইউজ করবেন তাহলে যখন সেই পার্টিকুলার কিভাবে কেউ সার্চ করবে তখন আপনার পোস্ট সবার আগে শো করবে এবং সেখান থেকে আপনি ট্রাফিক জেনারেট করতে পারবেন।

সর্বোপরি সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ট্রাফিক আনা এক দিনের কাজ নয় এটা আপনাকে প্রতিদিন পরিশ্রম করে একটা সময় পড়ে গিয়ে আপনি এর সুবিধা পাবেন এবং প্রচুর ট্রাফিক পাবেন কিন্তু আপনাকে প্রতিদিন কাজ করে যেতে হবে এবং এটা একদিনের না বরং এক বছরের পরিশ্রমের ফল সুতরাং সোশ্যাল মিডিয়াতে ট্রাফিক পেতে গেলে আপনাকে এক বছর পরিশ্রম করতে হবে এবং সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ট্রাফিক আমার অনেক সুবিধা রয়েছে তার প্রথম সুবিধা হল যে যখনই আপনি নতুন কোনো ব্লগ পোস্ট করবেন সেটা যদি সোশ্যাল মিডিয়ায় বারবার হয় তাহলে গুগল তাড়াতাড়ি শেষ করে অর্গানিক ভিজিটর বেশি আসবে

Leave a Comment