গরিব ও ধনী মানুষের মধ্যে ৫ টি গুরুত্বপূর্ণ পার্থ্যক্য

5 basic difference between rich people and poor people

আজকের ব্লগ পোস্টে আমি বড়লোক এবং গরীব লোকের মধ্যে পাঁচটি মেন বেসিক ডিফারেন্স আলোচনা করব এখানে ডিটেলসে বলা হবে যে কিভাবে কোন ধনী ব্যক্তি কেন ধনী হয় এবং কেন কোনো গরিব ব্যক্তি সারাজীবন গরিব থেকে যায় সুতরাং আজকে ব্লগপোস্টে পুরোটা পড়ুন এবং আপনি খুবই ভাল কিছু জানতে পারবেন।

ধনীরা দীর্ঘমেয়াদি চিন্তাভাবনা করে করে ,গরিবেরা স্বল্পমেয়াদী চিন্তাভাবনা করে

Rich people think long term, poor people think short term

লেখক এর মত অনুসারে আমাদের সমাজে মানুষকে মোটামুটিভাবে পাঁচটি ভাগে ভাগ করা যায়।
অত্যন্ত গরীব
গরিব
মধ্যবিত্ত
ধনী।

এদের মধ্যে প্রত্যেকটি গ্রুপের আলাদা আলাদা চিন্তা ভাবনা টাকাকে নিয়ে।

যারা অত্যন্ত গরীব তারা কেবল আজকের দিনের কথা ভেবে চলে। গরিবরা সারা সপ্তাহের কথা ভেবে চলে। মধ্যবিত্তরা সারা মাসের কথা ভেবে চলে। ধনী মানুষেরা এই বছরের কথা ভেবে চলে। এবং অত্যন্ত ধনী মানুষেরা এই দশকের কথা ভেবে চলে।

এবং গরিব ও ধনী মানুষের মধ্যে জীবনে বেঁচে থাকার লক্ষ্য আলাদা গরিব মানুষদের জন্য লোক জীবনে কেবলমাত্র বেঁচে থাকা মধ্যবিত্ত জীবনের লক্ষ্য হলো সুখে থাকা।
এবং ধনীদের লক্ষ্য হলো জীবনের সব দিক থেকে ভালোভাবে স্বাধীনভাবে স্বাধীনভাবে ভালোভাবে স্বাধীনভাবে স্বাধীনভাবে থেকে ভালোভাবে স্বাধীনভাবে স্বাধীনভাবে ভালোভাবে স্বাধীনভাবে স্বাধীনভাবে দিক থেকে ভালোভাবে স্বাধীনভাবে স্বাধীনভাবে ভালোভাবে স্বাধীনভাবে স্বাধীনভাবে থেকে ভালোভাবে স্বাধীনভাবে স্বাধীনভাবে দিক থেকে ভালোভাবে স্বাধীনভাবে স্বাধীনভাবে ভালোভাবে স্বাধীনভাবে স্বাধীনভাবে বেঁচে থাকা।

মধ্যবিত্তদের সবকিছু এখনি চাই কিন্তু ধনী এবং অত্যন্ত ধনী মানুষেরা ধৈর্য ধরার অনুশাসন গড়ে তোলে।

কোটিপতি মানুষেরা আজকে সেই সমস্ত কাজগুলো করে যেগুলো কেউ করছে না কিন্তু এই জন্যই তারা আগামীকাল সেই সমস্ত জিনিস পাবে যা বেশিরভাগ মানুষের কল্পনার বাইরে।

একটা পুরো দর্শকের কথা চিন্তা ভাবনা করে কোটিপতিরা এমন একটি সফল ব্যবসা গড়ে তুলতে পারে যেটা অনেক দিন স্থায়ী হয় কোন সাধারণ মানুষ বা গরিব মানুষ কখনোই করতে পারবে না না করতে পারবে না না।

আজ থেকে 10 বছর পর আপনি আপনার জীবনে কি ঠিক চান সেই নিয়ে চিন্তা ভাবনা করুন এবং সেই অনুসারে কাজ করুন দীর্ঘমেয়াদি চিন্তা করার জন্য দরকার ধৈর্য।

যেমন লেখক বলেছেন ধৈর্য হলো কোটিপতিদের জীবনের এক অমূল্য সম্পদ এবং অধৈর্য হলে মধ্যবিত্তদের সবথেকে সবথেকে মধ্যবিত্তদের সবথেকে বড় দায়।

এইজন্য লেখক আমাদের উপদেশ দিয়েছেন জীবনে প্রতিটা ক্ষেত্রে দীর্ঘমেয়াদি চিন্তাভাবনা করতে। নিজের সঙ্গে পরিবারের সম্পর্ক রিলেশন আবেগ উপার্জন প্রভৃতি সমস্ত কিছু বিষয় নিয়ে দীর্ঘ মেয়াদী চিন্তাভাবনা শুরু করো।

কোটিপতি মানুষেরা আইডিয়া নিয়ে আলোচনা করে মধ্যবিত্ত মানুষের জিনিসপত্র নিয়ে আলোচনা করে এবং অন্য মানুষদের নিয়ে আলোচনা করে।

Rich people talk about ideas, middle class people talk about things & poor people talk about people

আপনি বেশিরভাগ সময় কি নিয়ে আলোচনা করে মানুষ জিনিস নাকি আইডিয়া?

কোটিপতিরা নতুন নতুন আইডিয়া নিয়ে আলোচনা করে এবং সেগুলো তৈরি করে মধ্যবিত্তরা সেই সমস্ত আইডিয়াগুলো তৈরি হতে দেখে আর গরিব লোকেরা শুধু অন্য লোকেদের ব্যাপারে আলোচনা করে আর জিজ্ঞেস করে এই কি হয়েছে

মধ্যবিত্তদের আলোচনার বিষয় হলো গাড়ি খেলাধুলা খেলাধুলা এন্টারটেনমেন্ট মিউজিক মুভি।

এবং কোটিপতিরা সেই গাড়ির কোম্পানির মালিক সেই খেলার টিমগুলোর মালিক। বড়লোক মানুষেরা সেই সমস্ত মুভির গুলো প্রডিউসার সমস্ত মুভির গুলো প্রডিউসার এমনকি আপনি যেখানে ঘুরতে যান যে শপিংমলে বা কোন বা কোন খাওয়ার রেস্টুরেন্টে সেগুলো সেই কোটিপতিদের কেনা তারাই সেখানকার মালিক।

মধ্যবিত্তরা তাদের টাকাগুলো কোটিপতি মানুষদের মাথা থেকে বেরোনো আইডিয়ার পিছনে খরচ করেই জীবন কাটিয়ে দেয় জীবনে এন্টারটেনমেন্ট অবশ্যই জরুরি কিন্তু সেটার একটা লিমিট থাকা অত্যন্ত জরুরী।

ধনী মানুষেরা এন্টারটেইনমেন্ট করে কিন্তু সেটা তাদের প্রধান বিষয় নয় এই যে মধ্যবিত্তরা খুব সহজেই এন্টারটেনমেন্টের আসক্ত হয় এর কারণ হলো নাম খ্যাতি এই জিনিসগুলো তাদের খুব তাড়াতাড়ি ইমপ্রেস করে দেয় কিন্তু কোটিপতিরা এই সমস্ত জিনিস কে পাত্তা দেয় না

কোটিপতিরা পরিবর্তনকে স্বাগত জানায় আর মধ্যবিত্তরা পরিবর্তনকে ভয় পেয়ে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করে

Rich people welcome change but poor people try to resist the change

পরিবর্তন সমাজব্যবস্থার অঙ্গ অঙ্গ পরিবর্তনকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করা অনেকটা ছোট ঈগল পাখির বাসার উষ্ণতার আরামকে ছেঁড়ে না বেড়াতে যাওয়ার মত কিন্ত ক্রমে মা ঈগল তার নরম উষ্ণ পালকগুলো বাসা থেকে সরিয়ে বাসার সেই উষ্ণ আরামদায়ক পরিস্থিতিকে বদলে দেওয়ার আরামদায়ক পরিস্থিতিকে বদলে দেওয়ার চেষ্টা করে ছোট ঈগলটি বুঝতে পারার আগেই শুকনো শুকনো কাঠির খোঁচা এসে লাগে।
ছোট ঈগল চিৎকার করে মা ঈগল কে প্রশ্ন করে বলে মা এরকম তুমি কেন করছো?

তখন মা ঈগল বলে কারণ তোমার উড়তে শেখার সময় এসেছে। পরিবর্তনের মধ্য থেকে আমাদের জীবনে উন্নতি ঘটে এবং আমরা উঠতে শিখে।
এরপর থেকে কোন জিনিস যখন আপনার সঙ্গে ঘটবে এবং আপনার মনে হবে এটা কেন আমার সঙ্গে ঘটছে তখনই মা তার বাচ্চাকে কি উত্তর দিয়েছিল সেটা একবার মনে করে নেবেন

মধ্যবিত্তরা পরিবর্তনকে ভয় করে কারন তারা নিশ্চিত হতে পারে না সেই পরিবর্তনকেও সামলে উঠতে উঠতে পারবে কিনা তাদের পরিবর্তনকে বাধা দেওয়ার অন্যতম কারণ হলো ভয় ভয় আমাদের সুযোগ দেখতে পাওয়ার দিক থেকে অন্ধ করে তোলে মধ্যবিত্তরা মনে করে কোটিপতি ভাগ্যবান তারা সঠিক সময়ে সঠিক পরিস্থিতিতে ছিল বলেই কোটিপতি হতে পেরেছে।

কিন্তু সঠিক সময়ে সঠিক পরিস্থিতিতে থাকাটাই যথেষ্ট নয় একমাত্র সঠিক সময়ে সঠিক পরিস্থিতিতে সঠিক লোক হতে পারাটাই সুযোগটাকে দেখতে পাওয়া যায়। তাই স্বাগত জানানোর মানসিকতা থাকলে আপনি জীবনে অনেক লক্ষ্য পাওয়া যায়।

কোটিপতিরা ক্যালকুলেটেড রিস্ক নেয় আর মধ্যবিত্তরা রিস্ক নিতে ভয় পায়।

Rich people take calculated risk, poor people are afraid of taking any risk

কোটিপতিদের rat race থেকে বের হওয়ার জন্য calculated risk নেয়। অন্যদিকে মধ্যবিত্তরা রিস্ক নিতে ভয় পায়। Rat race থেকে বাইরে আসার একমাত্র উপায় হলো রিস্ক নেওয়া।

রিস্ক নেওয়া মানে এই না যে অন্ধকারে তির চালানো।কোটিপতি রা calculated রিস্ক নেয়।
Calculated risk বলতে যখন কেউ সেই ব্যাপারে জ্ঞান অর্জন করে এবং তারপর ব্যর্থ হলে কি কি ফলাফল ভোগ করতে হবে সেটা বিচার করে তবেই কোনো একশন নেওয়া হয়।
মধ্যবিত্ত দের মতোই কোটিপতি মানুষদের ভয় কাজ করে কিন্তু নিজের ভয়কে কিভাবে সামলাচ্ছেন সেটার উপর আপনার জীবনে কি কি হতে চলেছে নির্ভর করছে।

কোটিপতিরা তাদের ভয় কে জয় করে আর মধ্যবিত্তরা তাদের ভয়ের কাছে মাথা নত করে নেয়।

বড়লোকেরা জ্ঞান এর সাহায্যে ভয় কে জয় করে ভয় যদি অন্ধকার হয় তাহলে জ্ঞান অবশ্যই আলো। আলো যেমন অন্ধকার কি মুছে দেয় তেমনি জ্ঞান ভয় কে মুছে দেয়।

কিভাবে ভয়কে জয় করবেন ?

কোন কিছুতে ভয় পাওয়ার আগে তিনটে প্রশ্ন করা উচিত।

সবথেকে ভালো কি হতে পারে?
সবথেকে খারাপ কি হতে পারে?
কি হওয়ার সম্ভাবনা সবথেকে বেশি?

খারাপ যেতে হতে পারে সেটা মেনে নিয়ে যদি আপনার পক্ষে বেঁচে থাকা সম্ভব হয় ত এবং যেটা হওয়ার সম্ভাবনা সবথেকে বেশি সেটা যদি আপনাকে আপনার লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে নিয়ে যায় তবে আপনি সেই risk নিন।

কিন্ত সব থেকে খারাপ যেটা হতে পারে সেটা কি মেনে নিয়ে আপনার পক্ষে বেঁচে থাকা প্রায় অসম্ভব তাহলে আপনি রিক্স নেবেন না।

তাই এরপর থেকে যখনই আপনি কোন পরিস্থিতির সম্মুখীন হবেন এবং ভাববেন যে এই রিস্ক নেওয়া টা ঠিক হবে কিনা? তখন এই তিনটে প্রশ্ন আপনি নিজেকে করবে

কোটিপতিরা সব সময় নতুন কিছু শিখতে থাকে এবং মধ্যবিত্তরা মনে করে তাদের সব কিছু শেখা হয়ে গিয়েছে

Poor people stop learning but rich people keep on learning

কখনো ভেবে দেখেছেন যে বড়লোকের বাড়িতে বই রাখার জন্য আলাদা আলাদা ঘর আলাদা আলাদা ঘর থাকে কেন এটাকি লোক দেখানো জন্য। কিন্তু সত্যি তা না। বেশিরভাগ বড়লোক মানুষের প্রতি সপ্তাহে একটা করে বই পড়ে কখনো ভেবে দেখেছেন যে বিষয়টা আবিষ্কার করতে কয়েক বছর সময় লাগতে পারে সেটা সেই বই পড়ে আপনি কয়েক মিনিটে জানতে পারবেন এবং কয়েক ঘন্টার মধ্যে ।

একবার কোন বইয়ের মধ্য থেকে কোন থেকে কোন মধ্য থেকে কোন থেকে কোন মধ্য থেকে কোন থেকে কোন জিনিস শিখে আপনি অনেক উন্নতি করতে পারবে মধ্যবিত্ত মানুষদের বছরের পর বছর ইনকাম একই থাকে তার কারণ হলো তাদের জ্ঞান ও ও তাদের জ্ঞান ও ও একই থাকে যেখানে বড়লোকেরা সবসময় নিজেদেরকে ইম্প্রুভ করতে থাকে তারা সবসময় বিশ্বাস করে বড় কিছু পেতে গেলে আগে নিজেকে বড় কিছু ভাবে করতে হবে।

Leave a Comment